টুথপেস্ট দিয়ে মুখের কালো দাগ দূর করার উপায়

আসসালামু আলাইকুম বন্ধুরা আশা করি আপনারা সবাই ভাল আছেন। টুথপেস্ট অনেক কার্যকরী এবং ভালো একটি উপাদান যেটার মাধ্যমে বেশ কিছু কাজ করা সম্ভব । ঠিক তেমনি টুথপেস্ট দিয়ে মুখের কালো দাগ দূর করা সম্ভব। তো আপনি কি এই টুথপেস্ট দিয়ে মুখের কালো দাগ দূর করার উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চান। তাহলে পোস্টটি শেষ পর্যন্ত পড়ার অনুরোধ রইল ।

টুথপেস্ট যেহেতু রাসায়নিক উপাদান তাই এটি সরাসরি আমাদের ত্বকে ব্যবহার করলে ত্বকের মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে। সেই কারণে যদি আমরা এই টুথপেস্ট এর সাথে কিছু ভালো প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার করে আমাদের ত্বকে ব্যবহার করি তাহলে সেখানে বেশ ভালো উপকার পাওয়া সম্ভব । যেহেতু আমরা টুথপেস্ট দিয়ে মুখের কালো দাগ দূর করার উপায় জানব । তাই এর সাথে আমরা কিছু প্রাকৃতিক উপাদান মিশিয়ে নেব এবং কিভাবে আপনারা সেই প্রাকৃতিক উপাদান মিশাবেন সেটা আপনাদেরকে বুঝিয়ে দেব ।

টুথপেস্ট দিয়ে মুখের কালো দাগ দূর করার উপায়

টুথপেস্ট দিয়ে মুখের কালো দাগ দূর করার উপায়

আমরা নানাভাবে আমাদের ত্বকের যত্ন করতে চাই কিন্তু আমরা সঠিক উপায় না জানার কারনে ঠিকভাবে ত্বকের যত্ন করতে পারি না । তবে বন্ধুরা ফর্সা হওয়ার জন্য টুথপেস্ট ত্বকের জন্য বেশ কার্যকরী একটি উপাদান। তাই নিচে আমরা এই টুথপেস্টের সাথে আরো কিছু প্রাকৃতিক উপাদান মিশিয়ে আপনাদেরকে কিছু রিমিডি বানানো শিখালাম এবং সেগুলো ব্যবহার করা দেখিয়ে দিলাম তাহলে আপনাদের বুঝতে সুবিধা হবে ।

টুথপেস্ট এবং লেবু ব্যবহার করে

লেবুর মধ্যে থাকে ভিটামিন সি এবং এসিটিক অ্যাসিড যেটা আমাদের ত্বকের কালো দাগ এবং ত্বকের গর্তগুলো দূর করতে বেশ কার্যকরী ভূমিকা পালন করে ।  এছাড়াও লেবুতে বেশ কিছু সাইট্রিক এসিড এবং ভালো ভিটামিন আছে, ওইগুলো যদি আমাদের ত্বকের সঠিকভাবে ব্যবহার করা যায় তাহলে আমরা ভালো ফলাফল পেতে পারি । যাই হোক নিচে আমরা এই টুথপেস্ট এবং লেবু ব্যবহার করার পদ্ধতি আপনাদেরকে বুঝিয়ে দিলাম ।

  • প্রথমে আপনাকে আধা চা চামচ  টুথপেস্ট এবং ১ চা চামচ এর মত লেবুর রস একটি পরিষ্কার বাটিতে নিতে হবে। আপনি চাইলে এখানে কাচের বাটি ব্যবহার করতে পারেন ।
  • এরপর আপনাকে এই লেবুর রস এবং টুথপেস্ট উপাদান দুটিকে বাটিতে নিয়ে খুব ভালোভাবে একে অপরের সাথে মিশাতে হবে এবং নতুন একটি নরম পেস্ট তৈরি করতে হবে ।
  • নতুন পেস্ট তৈরি হয়ে গেলে পেস্টটি আপনার মুখে ভালোভাবে লাগিয়ে নিন , আপনি এখানে চাইলে পরিষ্কার ব্রাশ ব্যবহার করতে পারেন অথবা হাত দিয়েও লাগাতে পারে ।
  • দুইটি উপাদান না মিশিয়ে আপনি চাইলে একটি লেবু স্লাইড করে কেটে তার উপরে টুথপেস্ট লাগিয়ে সেটা সরাসরি আপনার মুখে ঘষে দিতে পারেন।
  • মিশ্রণ গুলো আপনাদের মুখে ভালোমতো লাগাবেন এবং চার থেকে পাঁচ মিনিট ধরে ঘষতে থাকবেন ।
  • ভালোমতো ঘষা হয়ে গেলে আপনি এখন দশ মিনিটের মত অপেক্ষা করবেন তারপর 10 মিনিট পরে অনেকগুলো পরিষ্কার পানি দিয়ে খুব ভালোভাবে আপনার মুখ পরিষ্কার করে নিবেন যাতে করে ওখানে কোন ধরনের লেবু বা টুথপেস্ট লেগে না থাকে ।
আরোও পড়ুনঃ   কিউট তেলের উপকারিতা গুলো জেনে নিন বিস্তারিত

এভাবে সপ্তাহে একবার করবেন এবং মাসে তিন থেকে চারবার করবেন। তারপর দেখবেন এক মাস বা দুই মাস পরে আপনার মুখের কালো দাগ দূর হয়ে গেছে এবং আপনার মুখ আগের থেকে বেশ উজ্জ্বল হয়েছে । তবে হ্যাঁ, লেবুতে থাকে সাইট্রিক এসিড যেটা আমাদের ত্বক ক্ষয় করে ফেলতে পারে তাই কখনোই অতিরিক্ত এই লেবু এবং টুথপেস্ট আমাদের ব্যবহার করা যাবে না ।

পড়ুনঃ অ্যালোভেরা জেল বানানোর পদ্ধতি – অ্যালোভেরা জেল এর উপকারিতা বিস্তারিত জেনে নিন

এলোভেরা জেল এবং লেবুর রস ব্যবহার করে

এলোভেরা জেল এমন একটি প্রাকৃতিক উপাদান যেটা আমাদের ত্বকের কোন ক্ষতি করে না বরং ত্বকে ব্যবহার করলে এটি বেশ ভালো প্রভাব ফেলে । অর্থাৎ অ্যালোভেরা জেল ব্যবহারে ত্বকের কোন সাইড ইফেক্ট ঘটে না । বরং ত্বকের পুষ্টি এবং ভিটামিনের অভাব পূরণ করতে সাহায্য করে । এছাড়াও আমাদের ত্বকে যে সমস্ত কালো দাগ রয়েছে এবং ডার্কনেস রয়েছে সেগুলো রিমুভ করতে এই অ্যালোভেরা জেল বেশ ভালো কাজ করে থাকে । যাইহোক কিভাবে আপনারা অ্যালোভেরা জেল এবং টুথপেস্ট ব্যবহার করে আপনাদের মুখের কালো দাগ দূর করতে পারবেন সেটা নিচে দিয়ে দিলাম।

  • টুথ পেস্ট এর সাথে এলোভেরা জেল ব্যবহার করতে হলে আপনাকে প্রথমে আধা চামচ টুথপেস্ট এবং এক চামচ এলোভেরা জেল কোন একটি পাতিলে নিতে হবে ।
  • নতুন পাতিলে নেওয়ার পর উপাদান দুটিকে খুব ভালোভাবে মিশ্রণ করতে হবে, যাতে করে কোন ধরনের স্পট না থাকে ।
  • ভালোভাবে উপাদান দুটিকে মেশালে নতুন একটি নরম পেস্ট তৈরি হবে যেটা এখন আমরা আমাদের মুখের ত্বকে ব্যবহার করতে পারব ।
  • অ্যালোভেরা জেল এবং টুথপেস্ট এর মিশ্রণের ফলে নতুন যে পেস্টটি তৈরি হবে সেটা এখন আমাদের মুখে তুলার সাহায্যে ভালোমতো স্ক্রাব করে লাগিয়ে নিতে হবে । লাগানোর পর ৪ থেকে ৫ মিনিট এভাবে ঘষতে থাকতে হবে ।
  • ভালো মতো ঘষার পর এভাবেই আমাদেরকে ১৫ মিনিটের মত অপেক্ষা করতে হবে যাতে করে উপাদান গুলো আমাদের ত্বকের সাথে খুব ভালোভাবে মিশে যায় ।
  • ভালোভাবে মিশিয়ে গেলে পরিষ্কার পানি দিয়ে খুব ভালো করে আপনাদের মুখ ধুয়ে নিতে হবে এবং পরিষ্কার তোয়ালে দিয়ে মুখ মুছে নিতে হবে।

এই অ্যালোভেরা জেল এবং টুথপেস্ট মুখে লাগালে আমাদের মুখের বেশ ভালো ভালো উপকার সাধন হয় সেগুলো হচ্ছেঃ

  • যদি কারো মুখে আগে থেকে ব্রন হয়ে থাকে এবং ব্রন গুলো ভালো হওয়ার পর মুখে ছোপ ছোপ দাগ এবং কালো দাগ হয়ে যায় তাহলে সেগুলো এই অ্যালোভেরা জেল এবং টুথপেস্ট ঠিক করে দিতে পারবে ।
  • মুখের মধ্যে কালো জাতীয় যেগুলো দাগ আছে সেগুলো যখন উঠে যাবে তখন অটোমেটিক আপনার মুখ উজ্জ্বল এবং ফর্সা হয়ে যাবে এবং সেই কাজটি এই উপাদান গুলো খুব ভালোভাবে করতে পারে ।
  • অ্যালোভেরার মধ্যে এমন কিছু এন্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদান আছে যেগুলো মুখের মধ্যে ক্ষতিকারক ছত্রাক ও ব্যাকটেরিয়া থাকলে সেগুলো সম্পূর্ণ ধ্বংস করে দেয়।
  • এছাড়াও আমাদের ত্বকের মধ্যে যদি এমন কোন উপাদান থাকে সেগুলো আমাদের ত্বকের চুলকানি ফুসকুড়ি ইত্যাদি রোগ ঘটিয়ে দিতে পারে সেগুলোকে সম্পূর্ণরূপে ধ্বংস করে দিতে সক্ষম।

টুথপেস্ট এবং ভিটামিন E ব্যবহার করে

যারা চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ আছে তারা অনেক সময় দেখবেন রোগীদেরকে এই ভিটামিন E খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকে । কারণ ভিটামিন E বি ব্যবহারের ফলে আমাদের ত্বকের মধ্যে থাকা ক্ষতিকার ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করতে পারে এছাড়াও ত্বকের যে সমস্ত ভিটামিনের দরকার সবগুলোর ঘাটতি পূরণ করতে পারে । যাইহোক নিচে এখন টুথপেস্ট এবং ভিটামিন ই ব্যবহার করে মুখের কালো দাগ দূর করার উপায় বিশ্লেষণ করা হলো ।

  • প্রথমে আপনাকে ফার্মেসি থেকে ভিটামিন ই এর কয়েকটি ক্যাপসুল কিনে আনতে হবে । এবং সেখান থেকে একটি ক্যাপসুল বের করে নিতে হবে ।
  • একটি ভিটামিন ই এর ক্যাপসুল এবং সাথে এক চামচ টুথপেস্ট এবং এক চামচ বেসন পরিষ্কার কোন পাতিলে নিতে হবে ।
  • এরপর এই প্রত্যেকটি উপাদান ব্লেন্ডার মেশিন অথবা যেকোনোভাবে খুব সুন্দর ভাবে একে ওপরের সাথে মিক্সার করে নিতে হবে ।
  • মনে রাখবেন এই উপাদানগুলো মিক্সার করলে টুথপেস্ট এর একটি অত্যন্ত কার্যকারী রেমেডি তৈরি হয়ে যাবে ।
  • এখন উপাদানটি হাত দিয়ে অথবা যে কোন ভাবে আপনাদের মুখে আস্তে আস্তে আলতো ভাবে মেসেজ করে লাগাতে থাকুন পাঁচ মিনিট ধরে ।
  • মেসেজ করা হয়ে গেলে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন যাতে করে পেস্টটি ত্বকের সাথে মিশে যায় তারপর সাধারণ পানি দিয়ে খুব ভালোভাবে মুখ ধৌত করে নিন ।
আরোও পড়ুনঃ   লাল তিল দূর করার ক্রিম | তিল দূর করার ওষুধ

এভাবে টুথপেস্ট এবং ভিটামিন ই ক্যাপসুল ব্যবহার করতে পারলে আপনাদের ত্বকের অস্বাভাবিক উন্নতি সাধন হবে। ভিটামিন ই আমাদের ত্বকের জন্য অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ একটি উপাদান সেটা আর বলে বোঝানো সম্ভব নয় । তো এই টুথপেস্ট এবং ভিটামিন ই ব্যবহারের ফলে আপনাদের ত্বকের কি কি উন্নতি হতে পারে সেগুলো আমি নিচে একটু বলে দিলাম ।

  • যাদের মুখে খুব বেশি পরিমাণ ব্ল্যাকহেডস রয়েছে তাদের খুবই কার্যকরী এই রেমিডি টি, কারণ তাদের সমস্ত ব্ল্যাকহেড গুলো দূর হয়ে যাবে ।
  • বিভিন্ন মানুষের তৈলাক্ত ত্বক আছে , আর এই তৈলাক্ত ত্বকে অনেক ধরনের সমস্যা হয়ে থাকে। যার মধ্যে প্রধান একটি সমস্যা হচ্ছে এগুলোতে ব্রণ উঠে যায় খুব সহজেই । তো যদি আপনারা নিয়ম মেনে টুথপেস্ট এবং ভিটামিন ই ব্যবহার করতে পারেন তাহলে আপনাদের ত্বকের এই তৈলাক্ত ভাব দূর হয়ে যাবে।
  • মুখের কালো দাগ গুলোকে রিমুভ করে দিয়ে মুখকে আগের থেকে বেশ উজ্জ্বল ও ফর্সা করে তুলতে পারবে।
  • যাদের মুখে আগে থেকে মেছতা, ব্রনের দাগ, বালি রাখা ইত্যাদি রয়েছে তাদের মুখকে নতুনভাবে গড়ে তুলতে সাহায্য করে ।

টমেটো এবং টুথপেস্ট ব্যবহার করে

অনেকেই টমেটো দিয়ে ফেসিয়াল করে থাকে কিন্তু টমেটোর সাথে যে টুথপেস্ট ব্যবহার করেও ফেসিয়াল করা যায় সেটা আমি আপনাদেরকে আজ শিখাব। টমেটো যেহেতু সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক একটি উপাদান তাই এটি ব্যবহারের ফলে আমাদের ত্বকের কোন সাইড ইফেক্ট করবে না বা ত্বকের কোন সমস্যা হবে না । যাই হোক চলুন তাহলে এখন আমরা টমেটো এবং টুথপেস্ট দিয়ে মুখের কালো দাগ দূর করার উপায় বিস্তারিত জেনে আসি ।

  • প্রথমে একটি পাকা টমেটো নিয়ে সেটাকে সমান দুই ভাগে কেটে নিতে হবে । অর্থাৎ অর্ধেক টমেটো এবং এর সাথে এক চা চামচ টুথপেস্ট কোনো আলাদা পাতিলে নিতে হবে ।
  • এরপর এই অর্ধেক টমেটোর সাথে এক চামচ টুথপেস্ট খুব ভালোভাবে মিশিয়ে নিতে হবে ।
  • মেশানো হয়ে গেলে নরম একটি নতুন পেস্ট তৈরি হবে সেটা স্ক্রাব করে আপনাদের মুখে আলতো ভাবে মেসেজ করতে থাকতে হবে ।
  • এভাবে কয়েক মিনিট মেসেজ করার পর যখন পেস্টটি আপনাদের মুখে খুব সুন্দর ভাবে লেগে যাবে তখন কিছুক্ষণ অপেক্ষা করে ভালো পরিষ্কার পানি দিয়ে মুখ সুন্দরভাবে ধৌত করে নেবেন ।
  • আপনারা চাইলে টমেটোর অর্ধেকটা স্লাইড করে কেটে নিয়ে তার ওপরে কোনভাবে টুথপেস্ট লাগিয়ে সেটা সরাসরি আপনাদের মুখে ঘষতে পারেন ।
আরোও পড়ুনঃ   ওলে নাইট ক্রিম এর অপকারিতা গুলো কি কি

যাদের ত্বক অনেক বেশি সেন্সেটিভ তাদের জন্য এই টমেটোর রেমিডি টি বেশ কার্যকরী । কারণ এই টমেটো এবং টুথপেস্ট আপনার সেনসিটিভ ত্বকের কালো দাগ দূর করতে পারবে । এছাড়াও আপনার ত্বকে যদি মলিন ভাব থাকে সেটাকেও সম্পূর্ণরূপে রিমুভ করতে সাহায্য করবে ।

মুলতানি মাটি এবং টুথপেস্ট দিয়ে

মুলতানি মাটি এমন একটি উপাদান যেটা সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপাদান এবং এটি ত্বকের উপর খুব ভালো ইতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে । তো কিভাবে মুলতানি মাটি এবং টুথ পেস্ট ব্যবহার করে ত্বকের কালো দাগ দূর করা যায় তার ধাপগুলো নিচে বর্ণনা করা হলোঃ

  • সর্বপ্রথমে আপনাদেরকে ১ চামচ টুথপেস্ট সাথে ১ চা চামচ মুলতানি মাটি এবং ১ চা চামচ গোলাপ জল নিলে ভালো হয় ।
  • প্রত্যেকটি উপাদান কে একটি আলাদা পরিষ্কার ভান্ড তে নিতে হবে এবং খুব ভালোভাবে এগুলোর সাথে মিশিয়ে নিতে হবে ।
  • যখন আপনি একে অপর সাথে উপাদানগুলো মিশ্রিত করবেন তখন দেখবেন নতুন একটি পেস্ট তৈরি হয়েছে যেটা একদম নরম ।
  • তো এখন এই নতুন পেস্টটি আপনাদের মুখে ভালোভাবে মাখিয়ে নিতে হবে এবং মাখিয়ে নেওয়ার কিছুক্ষণ পরে শুকিয়ে গেলে খুব ভালোভাবে নরম ঠান্ডা জল দিয়ে ধৌত করে নিবেন ।

এই রেমিডি ব্যবহার করলে যাদের ত্বকে উচ্চ মাত্রায় পিগমেন্টেশন রয়েছে , তাদের ত্বক থেকে এই পিগমেন্টেশন কমিয়ে স্বাভাবিক করে দিতে পারবে। এছাড়াও ত্বকের কালো দাগ দূর করে ফর্সা উজ্জ্বল ত্বক উপহার পাবেন ।

টুথপেস্ট এর রেমেডি ব্যবহারের ক্ষেত্রে কিছু সতর্কতা

বন্ধুরা যেহেতু টুথপেস্ট কোন প্রাকৃতিক উপাদান নয়। তাই এটি ব্যবহারের ক্ষেত্রে আপনাদেরকে অবশ্যই কিছু গুরুত্বপূর্ণ সতর্কতা মেনে চলতে হবে যেগুলো মেনে না চললে সমস্যা হতে পারে ।

  • আপনাদেরকে এমন টুথপেস্ট বাছাই করতে হবে যেটাতে খুব বেশি রাসায়নিক উপাদান নেই। অর্থাৎ ভেষজ উপাদান গুলো বেশি যে টুথপেস্ট এ আছে সেগুলো দিয়ে রেমিডি বানাতে হবে ।
  • এক্ষেত্রে আপনারা রঙিন টুথপেস্টগুলো থেকে দূরে থাকার চেষ্টা করবেন এবং যেগুলো টুথপেস্ট সাদা হয় সেগুলো ব্যবহার করার চেষ্টা করবেন ।
  • টুথপেস্ট এ এমন কিছু মারাত্মক উপাদান আছে যেগুলো আমাদের চামড়ায় অতিরিক্ত ব্যবহার করলে সম্পূর্ণ চামড়া উঠে যেতে পারে । তাই কখনোই বেশি বেশি এগুলো ব্যবহার করবেন না। সব সময় মাত্রার মধ্যে থেকে ব্যবহার করবেন ।
  • উপরে যে সমস্ত রেমিডি বানানো শেখানো হয়েছে এগুলো মুখে লাগিয়ে কখনোই রোদে বের হবে না এবং এমন কোন স্থানে যাবেন না যেখানে বেশি ধুলাবালি রয়েছে ।
  • যারা অপ্রাপ্তবয়স্ক রয়েছেন অর্থাৎ ১৮ বছর বয়সের নিচে যারা রয়েছেন তারা কখনোই এই ধরনের টুথপেস্ট এর রিমিডি ব্যবহার করবেন না ।
  • উপরে উল্লেখিত যে সমস্ত উপাদান ব্যবহার করে আমরা টুথপেস্ট এর রেমিডি বানানো শিখিয়েছি এই সকল উপাদানের মধ্যে যদি কোন উপাদানে আপনাদের এলার্জি থাকে তাহলে কখনো সেই উপাদান ব্যবহার করবেন না।
  • সব থেকে উল্লেখিত বিষয় মাত্রা অতিরিক্ত এটি ব্যবহার করা যাবে না ।

পরিশেষে

আজকের পোষ্টের মাধ্যমে আমরা টুথপেস্ট দিয়ে মুখের কালো দাগ দূর করার উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করেছে। এছাড়াও এই টুথপেস্ট ব্যবহার ক্ষেত্রে আমরা বেশ কিছু সতর্কতা ও আপনাদের সামনে উপস্থাপন করেছি । অবশ্যই সতর্কতা গুলো মেনে চলবেন এবং মাত্রার মধ্যে থেকে এটি নিয়মিত ব্যবহার করবেন । তাহলে আপনাদের মুখের কালো দাগ দূর হয়ে মুখ ফর্সা হয়ে যাবে ।

আজকের পোস্টে আলোচিত টপিক গুলোর মধ্যে যদি কেউ কিছু বুঝতে না পারেন তাহলে আমাদেরকে প্রশ্ন করবেন ।

ভালো লাগতে পারে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button