ফাইটন সিরাপ খাওয়ার নিয়ম | ফাইটন সিরাপ এর কাজ কি

আপনি কি ফাইটন সিরাপ খাওয়ার নিয়ম এবং ফাইটন সিরাপ এর কাজ কি এই সকল প্রশ্নগুলোর উত্তর জানতে ইচ্ছুক । তাহলে আপনি আজকে একটি সঠিক পোস্টে চলে এসেছেন। আজকের পোস্টের মাধ্যমে পাঠকদের কে ফাইটন সিরাপ খাওয়ার নিয়ম সহ ফাইটন সিরাপ এর কাজ কি এছাড়াও ফাইটন সিরাপ সম্পর্কে যাবতীয় তথ্যগুলো জানিয়ে দেওয়া  হবে ।
ফাইটন সিরাপ খাওয়ার নিয়ম | ফাইটন সিরাপ এর কাজ কি

আসসালামু আলাইকুম, আপনি যদি রাতের রাজা হয়ে উঠতে চান তাহলে ফাইটন সিরাপ শুধুমাত্র আপনার জন্য। কারণ এই ফাইটন সিরাপ ওয়ান টাইম ঔষধ এর মধ্যে রয়েছে অনেক বড় কার্যকারিতা। তবে এই কার্যকারিতা গুলো সঠিকভাবে পাওয়ার জন্য আপনাদেরকে অবশ্যই ফাইটন সিরাপ খাওয়ার নিয়ম ভালোভাবে জানতে হবে । 

এছাড়াও অনেকেই ফাইটন সিরাপ এর কাজ কি এটা ভালোভাবে জানে না যার ফলে তারা অনেক সমস্যার সম্মুখীন হন। যার কারণে আপনাদেরকে অবশ্যই এই ফাইটন সিরাপ খাওয়ার নিয়ম সহ ফাইটন সিরাপ এর কাজ কি এগুলো ভালোভাবে বুঝতে হবে।

ফাইটন সিরাপ খাওয়ার নিয়ম | ফাইটন সিরাপ এর কাজ কি

বর্তমানে সংসার জীবনে অনেক পুরুষ ও মহিলা বিভিন্ন কারণে অশান্তিতে ভুগছেন। তো অনেক ক্ষেত্রে এই অশান্তির কারণ হয়ে ওঠে পুরুষরা তাদের সঙ্গীকে সঠিকভাবে তৃপ্তি দিতে পারে না। যার কারণে অনেকেই বিভিন্ন ধরনের ঔষধ খুঁজে থাকেন । 

আপনিও যদি এরকম হয়ে থাকেন তাহলে আপনার জন্য ফাইটন সিরাপ ভালো কার্যকারিতা করতে পারবে। তবে হ্যাঁ এই সকল সিরাপ খাওয়ার আগে অবশ্যই এগুলো খাওয়ার নিয়ম এবং এগুলোর কাজ ভালোমতো জেনে নিবেন। কারণ অনেক ক্ষেত্রে এই ধরনের ওয়ান টাইম উত্তে*জক ঔষধ এর মারাত্মক পার্শ্ববর্তী  দেখা দিতে পারে। 

আরোও পড়ুনঃ   বাচ্চাদের কাশির সিরাপ এর নাম বাংলাদেশ | কাশির সিরাপ এর নাম বড়দের

যাইহোক বন্ধুরা আপনি যদি ফাইটন সিরাপ সেবন করার মনস্থির করে থাকেন তাহলে নিচে উল্লেখিত ফাইটন সিরাপ খাওয়ার নিয়ম এবং ফাইটন সিরাপ এর কাজ কি এই সকল বিষয়বস্তু সম্পর্কে ভালোমতো পড়ে নিন। তাহলে চলুন কথা না বাড়িয়ে শুরু করি।

ফাইটন সিরাপ খাওয়ার নিয়ম

যেকোনো ঔষধ এর সর্বোচ্চ কার্যকারিতা লাভের জন্য সেই ঔষধ খাওয়ার নিয়ম জানাটা অত্যন্ত আবশ্যক একটি বিষয়। ঠিক তেমনি আপনি যদি ফাইটন সিরাপ এর কার্যকারিতা গুলো সঠিকভাবে উপভোগ করতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে এই ফাইটন সিরাপ খাওয়ার নিয়ম ভালোভাবে জেনে নিতে হবে । যাইহোক নিচে আমরা ফাইটন সিরাপ খাওয়ার নিয়ম সহজ ভাষায় পাঠকের জন্য উপস্থাপন করলাম।

ফাইটন সিরাপ বাজারে দুই ধরনের পাওয়া যায় একটি হচ্ছে ৫০ মিলি এবং আরেকটি হচ্ছে ১০০ মিলি। তো এই ৫০ মিলি এবং ১০০ মিলি ফাইটন সিরাপ গুলো খাওয়ার নিয়ম গুলো আলাদা আলাদা হয়ে থাকে। নিচে আমরা এই দুই ধরনের ফাইটন সিরাপ খাওয়ার নিয়ম বুঝিয়ে দিলাম ।

আপনি যদি বাজার থেকে ১০০ মিলি ফাইটন সিরাপ কিনে নিয়ে আসেন তাহলে আপনার সঙ্গীর সাথে মিল*নের ৩০ মিনিট থেকে এক ঘন্টা আগে এই ঔষধ টি সেবন করতে হবে। তবে হ্যাঁ যেহেতু 100 মিলি ঔষধ এর মধ্যে বেশি পরিমাণ উপাদান মিশ্রিত থাকে তাহলে এটির অর্ধেক খেয়ে নেবেন। কারণ আপনি যদি একসঙ্গে পুরোটাই খেয়ে নেন তাহলে এটা অভারডোস হয়ে যাবে এবং হিতে বিপরীত হয়ে যেতে পারে।  

তাই অবশ্যই ১০০ মিলি ফাইটন সিরাপের অর্ধেক খেয়ে নিবেন। আর হ্যা আপনি যদি বাজার থেকে ৫০ মিলি ফাইটন সিরাপ ক্রয় করেন তাহলে মিলনের ৩০ মিনিট থেকে এক ঘন্টা আগে এটার পুরোটাই খেয়ে নিবেন। তাহলে আশা করি ভালো ফলাফল পাবেন।

আর হ্যাঁ এই সিরাপ এর ঔষধ গুলো কিছুটাতে তেতো সাদের হয়ে থাকে। যার কারণে আপনি চাইলে এগুলোর সাথে চিনি মিশিয়ে খেতে পারেন অথবা চাইলে কোকাকোলা এছাড়াও সেভেন আপ এর সঙ্গেও ঔষধ গুলো গুলিয়ে খেয়ে নিতে পারেন।  অনেকেই মধু দিয়ে ফাইটন সিরাপ খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকে যদি আপনার কাছে মধু থাকে তাহলে সেটার সাথেও খেতে পারবেন।

আরোও পড়ুনঃ   চুল সিল্কি করার উপায় - লেবু দিয়ে চুল সিল্কি করার উপায়

ফাইটন সিরাপ এর কাজ কি

ওপরে আপনারা এতক্ষন ফাইটন সিরাপ খাওয়ার নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে আসলেন। তো এই পর্যায়ে এসে আপনাদেরকে এখন আমরা ফাইটন সিরাপ এর কাজ কি সেগুলো সম্পর্কে জানাবো। কারণ একটি ঔষধ এর কাজ সঠিকভাবে না জানলে আপনি এর ভুল প্রয়োগ করে ফেলতে পারেন। তাই প্রত্যেকটা ঔষধ এর কাজ সম্পর্কে ভালোমতো আইডিয়া থাকা আবশ্যক। 

তো এই ফাইটন সিরাপ এর কাজ সম্পর্কে বলতে গেলে বলতে হবে এটি হচ্ছে মানুষের সেক*চু*য়াল পাওয়ার বৃদ্ধির একটি ঔষধ । তবে হ্যাঁ মনে রাখবেন এই ওষুধটি কিন্তু সব সময় এর জন্য কাজ করবে না আপনি যে সময় সেবন করবেন শুধু সেই সময়ের জন্য কাজ করবে।

পড়তে পারেনঃ মোটা হওয়ার ডাক্তারি টিপস সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন

অর্থাৎ এই ফাইটন সিরাপ একটি ওয়ান টাইম ঔষধ। আপনি যখন এটি সেবন করবেন ঠিক তখনই এর ফলাফল পাবেন পরবর্তীতে আর এর কোন প্রভাব থাকবে না। এই সিরাপের গায়ে লেখা দেখবেন এখানে লেখা আছে রাতের রাজা। তো আপনি যদি আপনার সঙ্গীর সাথে দীর্ঘক্ষণ মিলন করতে চান এবং ভালো তৃপ্তি দিতে চান তাহলে এই সিরাপ গ্রহণ করতে পারেন ।

ফাইটন সিরাপ এর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া

মেডিকেল জগতের প্রত্যেকটা ওষুধেরই কোন না কোন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া আছে। সেই ব্যাপারে এই ফাইটন সিরাপ ও ব্যতিক্রম কিছু নয়। এছাড়াও যে সকল ঔষধ এই ধরনের ওয়ান টাইম কাজে ব্যবহৃত হয় সেগুলোর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া একটু বেশিই থাকে। কারণ এগুলো শরীরে প্রবেশ করার কিছুক্ষণের মধ্যে তাদের কাজ শুরু করে দেয়। 

তো আপনি যদি এই ফাইটন সিরাপ সেবন করেন তাহলে আপনার ভিতরেও কিছু পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে। তাই আপনাকে অবশ্যই ফাইটন সিরাপ খাওয়ার নিয়ম এবং ফাইটন সিরাপ এর কাজগুলো জানার পাশাপাশি এই সিরাপ এর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াগুলো সম্পর্কেও ধারণা রাখতে হবে।

আরোও পড়ুনঃ   আপাং গাছের শিকড়ের উপকারিতা জানলে অবাক হবেন

যাই হোক আপনি যদি এই সিরাপ গ্রহণ করেন তাহলে সিরাপ গ্রহণের পর আপনার মাথা ব্যাথা এবং শরীরে অস্বস্তি বোধ হতে পারে । তবে হ্যাঁ এই ধরনের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া গুলো দীর্ঘস্থায়ী নয় কিছুক্ষণ পর আবার ঠিক হয়ে যাবে। তবে অনেকেই ভেবে থাকে যে এ সকল ঔষধ এর কোন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই কিন্তু এই ধারণাটি সম্পূর্ণ ভুল, প্রত্যেকটা ঔষধেরই কোনো ন কোনো পার্শ্বপ্রতিক রয়েছে। 

পরিশেষে ফাইটন সিরাপ খাওয়ার নিয়ম

উপরে আপনারা ফাইটন সিরাপ সম্পর্কে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নের উত্তর পেয়ে গেছেন। ফাইটন সিরাপ এর কাজ কি এই প্রশ্নের উত্তর আমরা খুব ভালোভাবে দিয়েছি এছাড়াও ফাইটন সিরাপ এর উপকারিতা ও আপনাদেরকে বুঝিয়ে দিয়েছে। 

আমরা আপনাকে যে সমস্ত বিষয়গুলো পরিষ্কারভাবে জানিয়ে দিয়েছি এই সকল বিষয় বাদেও যদি ফাইটন সিরাপ সম্পর্কে আরো কোন কিছু জানতে চান তাহলে সেটা অবশ্যই কমেন্টে জিজ্ঞাসা করবেন। আর হ্যাঁ এই সকল ঔষধ সেবন এর আগে অবশ্যই সাবধানতা অবলম্বন করবেন ।

ঔষধ সম্পর্কিত যাবতীয় ইনফরমেশন গুলোর কপিরাইট owner banglablogspot নয় । এছাড়াও আমরা কাউকে কোন ঔষধ খাওয়ার পরামর্শ দেই না। আপনারা প্রত্যেকটা ওষুধ সম্পর্কে নিজে ভালোভাবে রিসার্চ করবেন এবং ডাক্তারদের পরামর্শ অনুযায়ী সেবন করবেন। ধন্যবাদ

ভালো লাগতে পারে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button